ভারতে অবৈধভাবে বাংলাদেশি থাকলে ফিরিয়ে আনা হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ভারতে অবৈধভাবে কোন বাংলাদেশি থাকলে তাদের ফিরিয়ে আনা হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেছেন, ভারতে কোন বাংলাদেশি অবৈধভাবে থাকলে তাদের যথাযথ প্রক্রিয়ায় ফিরিয়ে আনা হবে।মন্ত্রী বলেন, ভারত এমন কিছু করবে না যাতে বাংলাদেশে অশান্তি হয়। ভারত ভালো থাকলে বাংলাদেশ ভালো থাকে। সেখানে অশান্তি হলে বাংলাদেশেও অশান্তি দেখা দেয়। তাই তারা কথা দিয়েছেন, ভারত এমন কিছু করবে না যাতে বাংলাদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর আখালিয়ায় বিজিবির জকিগঞ্জ ব্যাটালিয়নের (১৯ বিজিবি) বাস্কেটবল গ্রাউন্ডে মাদকদ্রব্য ধ্বংসকরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে গত দেড় বছরে সিলেট সীমান্ত এলাকা থেকে উদ্ধারকৃত প্রায় ১৭ কোটি টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়।পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীদের ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে রয়েছে সরকার। যেকোন মূল্যে দেশ থেকে মাদক নির্মূল করা হবে।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন বিজিবির উত্তর-পূর্ব রিজিয়নের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জাকির হোসেন, সিলেট সেক্টর সদর দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত সেক্টর কমান্ডার লে. কর্নেল আহমেদ ইউসুফ জামিল, জকিগঞ্জ ব্যাটালিয়নের (১৯ বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. রফিকুল ইসলাম, সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, সিলেটের পুলিশ সুপার মো. ফরিদ উদ্দিন প্রমুখ। ধ্বংস করা মাদকের মধ্যে রয়েছে হুইস্কি, ফেনসিডিল, বিয়ার, গাঁজা, ইয়াবা, বিড়ি ও সিগারেট।এদিকে দুপুরে নগরীর ধোপাদিঘীর পাড়ের একটি কমিউনিটি সেন্টারে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে ই-পাসপোর্ট চালু প্রসঙ্গে উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বলেন, ই-পাসপোর্ট দেওয়া শুরু হয়েছে। তবে প্রথমে কিছু সংখ্যক লোকদের দেওয়া হবে। আগামী জুলাই থেকে সাধারণ মানুষকে বিতরণ করা হবে। কিছু সংখ্যক বলতে সরকারি কর্মকর্তারা আপাতত ই-পাসপোর্ট পাচ্ছেন- যোগ করেন তিনি।দুপুরে বিমানযোগে দুইদিনের সিলেট সফরে এসে বিকেলে নগরীর ঐতিহ্যবাহী মুরারিচাঁদ কলেজে (এমসি কলেজ) নির্মিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন। এরপর তিনি সদর উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন। এছাড়া তিনি দক্ষিণ সুরমার কদমতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫০ বছরপূর্তি অনুষ্ঠান ও মঈনুদ্দীন কলেজের গভর্নিং বডির সভায় যোগ দেন।

ভারতে অবৈধভাবে কোন বাংলাদেশি থাকলে তাদের ফিরিয়ে আনা হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেছেন, ভারতে কোন বাংলাদেশি অবৈধভাবে থাকলে তাদের যথাযথ প্রক্রিয়ায় ফিরিয়ে আনা হবে।মন্ত্রী বলেন, ভারত এমন কিছু করবে না যাতে বাংলাদেশে অশান্তি হয়। ভারত ভালো থাকলে বাংলাদেশ ভালো থাকে। সেখানে অশান্তি হলে বাংলাদেশেও অশান্তি দেখা দেয়। তাই তারা কথা দিয়েছেন, ভারত এমন কিছু করবে না যাতে বাংলাদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর আখালিয়ায় বিজিবির জকিগঞ্জ ব্যাটালিয়নের (১৯ বিজিবি) বাস্কেটবল গ্রাউন্ডে মাদকদ্রব্য ধ্বংসকরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে গত দেড় বছরে সিলেট সীমান্ত এলাকা থেকে উদ্ধারকৃত প্রায় ১৭ কোটি টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়।পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীদের ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে রয়েছে সরকার। যেকোন মূল্যে দেশ থেকে মাদক নির্মূল করা হবে।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন বিজিবির উত্তর-পূর্ব রিজিয়নের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জাকির হোসেন, সিলেট সেক্টর সদর দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত সেক্টর কমান্ডার লে. কর্নেল আহমেদ ইউসুফ জামিল, জকিগঞ্জ ব্যাটালিয়নের (১৯ বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. রফিকুল ইসলাম, সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, সিলেটের পুলিশ সুপার মো. ফরিদ উদ্দিন প্রমুখ। ধ্বংস করা মাদকের মধ্যে রয়েছে হুইস্কি, ফেনসিডিল, বিয়ার, গাঁজা, ইয়াবা, বিড়ি ও সিগারেট।এদিকে দুপুরে নগরীর ধোপাদিঘীর পাড়ের একটি কমিউনিটি সেন্টারে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে ই-পাসপোর্ট চালু প্রসঙ্গে উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বলেন, ই-পাসপোর্ট দেওয়া শুরু হয়েছে। তবে প্রথমে কিছু সংখ্যক লোকদের দেওয়া হবে। আগামী জুলাই থেকে সাধারণ মানুষকে বিতরণ করা হবে। কিছু সংখ্যক বলতে সরকারি কর্মকর্তারা আপাতত ই-পাসপোর্ট পাচ্ছেন- যোগ করেন তিনি।দুপুরে বিমানযোগে দুইদিনের সিলেট সফরে এসে বিকেলে নগরীর ঐতিহ্যবাহী মুরারিচাঁদ কলেজে (এমসি কলেজ) নির্মিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন। এরপর তিনি সদর উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন। এছাড়া তিনি দক্ষিণ সুরমার কদমতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫০ বছরপূর্তি অনুষ্ঠান ও মঈনুদ্দীন কলেজের গভর্নিং বডির সভায় যোগ দেন।

ভারতে অবৈধভাবে কোন বাংলাদেশি থাকলে তাদের ফিরিয়ে আনা হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেছেন, ভারতে কোন বাংলাদেশি অবৈধভাবে থাকলে তাদের যথাযথ প্রক্রিয়ায় ফিরিয়ে আনা হবে।মন্ত্রী বলেন, ভারত এমন কিছু করবে না যাতে বাংলাদেশে অশান্তি হয়। ভারত ভালো থাকলে বাংলাদেশ ভালো থাকে। সেখানে অশান্তি হলে বাংলাদেশেও অশান্তি দেখা দেয়। তাই তারা কথা দিয়েছেন, ভারত এমন কিছু করবে না যাতে বাংলাদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর আখালিয়ায় বিজিবির জকিগঞ্জ ব্যাটালিয়নের (১৯ বিজিবি) বাস্কেটবল গ্রাউন্ডে মাদকদ্রব্য ধ্বংসকরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে গত দেড় বছরে সিলেট সীমান্ত এলাকা থেকে উদ্ধারকৃত প্রায় ১৭ কোটি টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়।পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীদের ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে রয়েছে সরকার। যেকোন মূল্যে দেশ থেকে মাদক নির্মূল করা হবে।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন বিজিবির উত্তর-পূর্ব রিজিয়নের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জাকির হোসেন, সিলেট সেক্টর সদর দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত সেক্টর কমান্ডার লে. কর্নেল আহমেদ ইউসুফ জামিল, জকিগঞ্জ ব্যাটালিয়নের (১৯ বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. রফিকুল ইসলাম, সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, সিলেটের পুলিশ সুপার মো. ফরিদ উদ্দিন প্রমুখ। ধ্বংস করা মাদকের মধ্যে রয়েছে হুইস্কি, ফেনসিডিল, বিয়ার, গাঁজা, ইয়াবা, বিড়ি ও সিগারেট।এদিকে দুপুরে নগরীর ধোপাদিঘীর পাড়ের একটি কমিউনিটি সেন্টারে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে ই-পাসপোর্ট চালু প্রসঙ্গে উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বলেন, ই-পাসপোর্ট দেওয়া শুরু হয়েছে। তবে প্রথমে কিছু সংখ্যক লোকদের দেওয়া হবে। আগামী জুলাই থেকে সাধারণ মানুষকে বিতরণ করা হবে। কিছু সংখ্যক বলতে সরকারি কর্মকর্তারা আপাতত ই-পাসপোর্ট পাচ্ছেন- যোগ করেন তিনি।দুপুরে বিমানযোগে দুইদিনের সিলেট সফরে এসে বিকেলে নগরীর ঐতিহ্যবাহী মুরারিচাঁদ কলেজে (এমসি কলেজ) নির্মিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন। এরপর তিনি সদর উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন। এছাড়া তিনি দক্ষিণ সুরমার কদমতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫০ বছরপূর্তি অনুষ্ঠান ও মঈনুদ্দীন কলেজের গভর্নিং বডির সভায় যোগ দেন।

Recommended For You

About the Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *